টেক জ্ঞানসেরা ১০

বিশ্বের সেরা গেমিং ফোন ২০২২ – বেস্ট ১০ গেমিং মোবাইল

চলুন জেনে নেয়া যাক বিশ্বের সেরা ১০টি গেমিং মোবাইল সম্পর্কে যেগুলো গেম খেলার জন্য গেমারদের বেস্ট চয়েজ হতে পারে। সম্পুর্ণ আর্টিকেলে ডিটেইলে আলোচনা করা হয়েছে বিশ্বের সেরা গেমিং ফোন ২০২২ নিয়ে।


আসসালামু আলাইকুম। আমরা কে না গেম খেলতে ভালোবাসি। তাই তো আমরা গেমিং ফোন সমন্ধে খোজ-খবর রাখতে ভালোবাসি। তাদের মনে চায় ইশ! যদি স্মুথভাবে গেমিং করা যেতো এমন ফোন হাতে থাকতো। তাহলে তো আমরা মন মতো গেমিং করতে পারব।

এমন ফোন আমরা সচরাচর দেখতে পাই। তাদের মধ্যে কিছু ফোন কম বাজেটের আবার কিছু ফোন হাই বাজেটের হয়ে থাকে। তবে কিছু ফোন আবার কম বাজেট এ অস্থির পারফরম্যান্স দিয়ে থাকে আবার কিছু ফোন আছে যা পৃথিবীর সেরা গেমিং ফোন।

আজ আমরা এই আর্টিকেলে বিশ্বের সেরা গেমিং ফোন নিয়েই আলোচনা করব। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক, পৃথিবীর সবচেয়ে সেরা ১০টি গেমিং ফোন এর সমন্ধে।

পৃথিবীর সেরা গেমিং ফোন ২০২২

শুরুতে জেনে নেওয়া যাক আজকের সেরা ১০টি গেমিং স্মার্টফোন এর নাম সম্পর্কে। নিচের লিস্ট শুধুমাত্র ক্রমানুযায়ী তথ্য দেয়ার জন্য। সেরা বা জনপ্রিয়তার জন্য লিস্টিং করা হয়নি।

  • ১. Asus ROG Phone 6D
  • ২. Black Shark 5 Pro
  • ৩. Asus ROG Phone 5 Ultimate
  • ৪. Nubia Red Magic 7 Pro
  • ৫. Black Shark 4 Pro
  • ৬. Sony Xperia 1 IV
  • ৭. Iphone 14 Pro Max
  • ৮. Samsung Galaxy S22 Ultra
  • ৯. Oneplus 10T
  • ১০. Poco F4 GT

চলুন জেনে নেওয়া যাক উপরে উল্লেখিত সব ফোনের স্পেসিফিকেশন।

বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার উপায়

Asus ROG Phone 6D

Asus ROG Phone 6D ফোনটির সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হলো এর 6.78 ইঞ্চির বিশাল AMOLED ডিসপ্লে, [email protected] এ ভিডিও করার সুবিধা এবং 165 হার্জ এর রিফ্রেশ রেট। অসাধারণ গেমিং পারফরম্যান্স এবং 165 Hz রিফ্রেশ রেটের এই ফোনটি সারাদেশে Asus অথোরাইজড স্টোরগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে।

ফোনটির ডিজাইন বেশ সুন্দর এবং প্রিমিয়াম। ফোনটির ওজন 247 গ্রাম। এই ফোনটিতে আছে 6.78 inches এর AMOLED ডিসপ্লে। ডিস্লেটিতে 1B colors এর সাথে 165Hz এর রিফ্রেশ রেট রয়েছে। HDR10+ সাপোর্টেড ডিসপ্লেটির 1200 nits (peak) ব্রাইটনেস রয়েছে। ফোনটির পিছনে ও আছে একটি 2″ এর OLED ডিসপ্লে।

প্রোটেকশন হিসেবে ব্যাবহার করা হয়েছে Corning Gorilla Glass Victus। ডিসপ্লে রেজুলেশন হবে ১০৮০ × ২৪৪৮ পিক্সেল। ফোনটিতে ব্যাবহার করা হয়েছে MediaTek Dimensity 9000+ (4 nm) চিপসেট। একইসাথে রয়েছে 165Hz রিফ্রেশ রেট এবং Android 12 অপারেটিং সিস্টেম। গেমারদের জন্য রয়েছে Mali-G710 MC10 GPU এবং প্রেসার সেনসিটিভ জোন (Pressure sensitive zones, Gaming triggers)

Asus ROG Phone 6D ফোনটি পাওয়া যাবে ১২/৫১২ জিবি ভেরিয়েন্টে। ফোনটির পিছনে রয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেল এর প্রাইমারি ক্যামেরা। একটি ১৩ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা এবং একটি ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা। ক্যামেরা দিয়ে আপনি [email protected], [email protected]/60fps, [email protected]/60/120/240fps ভিডিও করতে পারবেন।

তাছাড়া সেলফি ক্যামেরা হিসেবে এতে আছে ১২মেগাপিক্সেল। ব্যাটারি হিসেবে এই ফোনে থাকছে Li-Po 6000 mAh, non-removable ব্যাটারি। সাথে আছে 65W এর ফাস্ট চার্জিং এবং 10W এর রিভার্স চার্জিং প্রযুক্তি। এই ফোনটির বাংলাদেশ বাজার দামঃ ৯৯,০০০ টাকা।

আরও পড়ুনঃ  সেরা ৫টি গেমিং ফোন ২০২২ - বাংলাদেশ ও বিশ্বের বেস্ট গেমিং মোবাইল

Black Shark 5 Pro

Black Shark 5 Pro ফোনটিতে ৬.৬৭ ইঞ্চির ডিসপ্লে রয়েছে। যার রেজুলেশন ১০৮০ × ২৪০০ পিক্সেল। ফোনটিতে থাকছে ৫জি নেটওয়ার্ক টেকনোলজি। Black Shark 5 pro ফোনে প্রসেসর হিসেবে আছে Qualcomm SM8450 Snapdragon 8 Gen 1 (4 nm)

সিপিইউ Octa-core (1×3.00 GHz Cortex-X2 & 3×2.40 GHz Cortex-A710 & 4×1.70 GHz Cortex-A510) এবং জিপিইউ Adreno 730 ব্যবহৃত হয়েছে এই ফোনে। ফোনটির র‍্যাম হিসেবে আছে 8GB/12GB/16GB আর স্টোরেজ হিসেবে 256GB/512GB।

ফোনটিতে মেইন ক্যামেরা হিসেবে এতে আছে ১০৮ মেগাপিক্সেল এর ক্যামেরা এবং ১৩ মেগাপিক্সেল আল্ট্রাওয়াইড, ৫ মেগাপিক্সেল টেলিফোটো মাক্রো। আর সেলফি ক্যামেরা হিসেবে এতে আছে ১৬ মেগাপিক্সেল এর ক্যামেরা।

Black Shark 5 pro ফোনে ব্যাটারি হিসেবে Li-Po 4650 mAh, non-removable. ব্যবহার করা হয়েছে আর চার্জিং এর জন্য 120W এর চার্জার রয়েছে। Black Shark 5 pro ফোনটির বাংলাদেশ দামঃ ৬০,০০০ টাকা।

Asus ROG Phone 5 Ultimate

ফোনটিতে রয়েছে 5G, 4G LTE, WiFi 802 সাপোর্ট করবে। ফোনটিতে প্রসেসর হিসেবে থাকছে Qualcomm SM8350 Snapdragon 888 (5 nm)

Asus ROG Phone 5 এ র‍্যাম হিসেবে এতে আছে ১৮ GB এবং স্টোরেজ হিসেবে ৫১২ জিবি। Asus ROG Phone 5 এর ডিসপ্লের সাইজ ৬.৭৮ ইঞ্চি। Asus ROG Phone 5 ফোনে ৬৪ মেগাপিক্সেলের ট্রিপোল ক্যামেরা রয়েছে।

ফোনটিতে 6000mah এর নন রিমুভেবল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটির ডিসপ্লে রেজুলেশন ১০৮০×২৩৪০ পিক্সেল। গেমিং এ ভালো এক্সপেরিয়ান্স পাওয়ার জন্য এখানে নচ ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়নি। CPU হিসেবে রয়েছে (Octa-core Kryo 680)। GPU হিসেবে থাকছে Adreno 660, যা আপনাকে Best Gaming Phone এর অভিজ্ঞতা দিবে। ফোনটির দাম রাখা হয়েছে 79,999 টাকা।

Nubia Red Magic 7 Pro

নুবিয়া রেড ম্যাজিক ৭ প্রো এর দুইটি মডেল রয়েছে। দুই মডেল এর দুই কালার ও ভিন্ন স্টোরেজ অপশন থাকছে। কালো কালারের অবসিডিয়ান মডেলটিতে ১৬জিবি র‍্যাম ও ২৫৬জিবি স্টোরেজ থাকছে। অন্যদিকে সুপারনোভা মডেলটিতে থাকছে একই ১৬জিবি র‍্যাম এর পাশাপাশি ৫১২জিবি স্টোরেজ।

উভয় মডেলে চিপসেট হিসেবে থাকছে কোয়ালকম এর লেটেস্ট ও গ্রেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ প্রসেসর। ৪৫০০ মিলিএম্প এর ব্যাটারি দ্বারা চলবে ফোনটির উভয় ভ্যারিয়েন্ট। আর এই ব্যাটারিকে চার্জ করতে ফোনের বক্সে পাওয়া যাবে ৬৫ওয়াট এর চার্জার। 8GB/128GB ভ্যারিয়েন্ট এর বাংলাদেশ দামঃ ৫৫,০০০ টাকা এবং 16GB/512GB ভ্যারিয়েন্টের বাংলাদেশ দামঃ ৮০,০০০ টাকা।

Xiaomi Black Shark 4 Pro

আমাদের লিস্টের ৫ নাম্বার এ আছে শাওমি কোম্পানির Black Shark 4 Pro ফোনটি। এই ফোনে আছে ৬.৬৭ ইঞ্চি এর সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যার রেজুলেশন হবে ১০৮০ × ২৪০০ পিক্সেল। এই ফোনটির মেইন ক্যামেরা হিসেবে এতে আছে ৬৪ মেগাপিক্সেল আর রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ও ৫ মেগাপিক্সেল এর থ্রিপল ক্যামেরা সেটাপ ফোন।

ফোনটির সেলফি ক্যামেরা হিসেবে এতে আছে ২০ মেগাপিক্সেল এর ক্যামেরা। Black Shark 4 Pro এর ওএস হিসেবে এতে আছে এন্ডোয়েড ১১। ফোনটির সিপিইউ হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে Octa-Core 2.84 GHz Kryo।

আরও পড়ুনঃ  Vivo iQOO Z6 Pro 5G - দুর্দান্ত গেমিং ফোন। বাংলাদেশ দাম কত?

Shark 4 Pro এ র‍্যাম ও স্টোরেজ হিসেবে এই ফোনে রয়েছে 8/256, 12/256 & 16/512 GB। এই ফোনে ৪৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে সাথে ১২০ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি। এই ফোনটির বর্তমান বাংলাদেশ দাম ৮জিবি/২৫৬জিবি ৫৫,০০০ টাকা।

উপরে আপনাদের সাথে তুলে ধরেছি পৃথিবীর সবচেয়ে সেরা গেমিং ফোন। তবে এখন যে ফোন গুলো নিয়ে আলোচনা করব, সেই সব ফোনগুলো শুধু গেমিং নয় বরং পারফরম্যান্স, ভালো মানের ক্যামেরা ইত্যাদি রয়েছে। এই ফোনগুলোতে আপনার নিত্যদিনের সকল কাজ কর্ম করতে পারবেন সাথে বেস্ট গেমিংও করতে পারবেন। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক সেসব ফোন এর স্পেসিফিকেশন।

Sony Xperia 1 IV

আমাদের লিস্টের ৬ নাম্বার এ আছে Sony Xperia 1 IV ফোনটি। এই ফোনটি দিয়ে শুধু গেমিং নয় বরং আপনি এই ফোনের সকল কিছু বেস্ট পাবেন। এই ফোনটির ডিসপ্লে সাইজ ৬.৫ ইঞ্চির একটি ওলেড ক্যাপাসিটিভ টাচস্ক্রিন যাতে রয়েছে ১ বিলিয়ন কালার।

Sony Xperia 1 IV ফোনের ডিসপ্লের রেজুলেশন হবে ১৬৪৪×৩৮৪০ পিক্সেল এবং পিক্সেল ডেনসিটি রয়েছে ৬৪৩ পিপিআই। ফোনটিতে রয়েছে ১২০ হার্জ এর রিফ্রেশ রেট। Sony Xperia 1 IV এ প্রসেসর হিসেবে এতে আছে Qualcomm SM8450 Snapdragon 8 Gen 1 (4 nm)।

ফোনটিতে (১২+১২+১২+০.৩) মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে। যেহেতু ফোনটি সনির তাই বলা যাই ক্যামেরা ১২ মেগাপিক্সেল এর হলেও এর পারফরম্যান্স অস্থির। Sony Xperia 1 IV সেলফি ক্যামেরা হিসেবে এতে আছে ১২ মেগাপিক্সেল এর ক্যামেরা। ফোনটিতে থাকছে ৫০০০ এমএএইচ এর ব্যাটারি ও ৩০ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি।

সোনির এই মোবাইলটির বর্তমান বাংলাদেশ দাম ১২জিবি/২৫৬জিবি ১,৩০,০০০ টাকা।

Iphone 14 Pro Max

IPhone 14 Pro Max ভারত সহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে লঞ্চ হয়ে গেছে। সর্বকালের সেরা আপগ্রেড নিয়ে হাজির হয়ে গেল iPhone 14 সিরিজ়। ফোনটিতে আছে অ্যাপলের লেটেস্ট A16 Bionic চিপ ও স্যাটেলাইট কানেক্টিভিটি সাপোর্ট। iPhone 14 Pro মডেলগুলিতে ডায়নামিক আইল্যান্ড বা পিল শেপড নচ দেওয়া হয়েছে।

iPhone 14 Pro Max এ রয়েছে বেশ কিছুটা বড় 6.7 ইঞ্চির ডিসপ্লে, যার ব্রাইটনেস 1600 নিটস। ডিসপ্লেটিতে ডলবি ভিসন সাপোর্ট এবং HDR10 সাপোর্ট করে। অলওয়েজ় অন ডিসপ্লে, প্রোমোশন 120Hz রিফ্রেশ রেট এবং ওয়াইড কালার গ্যামুট সাপোর্ট করে।

IPhone 14 Pro Max মডেলটিতে A16 Bionic চিপসেট দেওয়া হয়েছে, যা 4nm ম্যানুফ্যাকচারিং প্রসেস ব্যবহার করে এবং 6 কোর CPU দ্বারা নির্মিত। 14 Pro Max ফোনে দুটি ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হয়েছে, যার প্রাইমারি সেন্সর 48MP।

সেকেন্ডারি সেন্সর হিসেবে ফোন দুটিতে রয়েছে 12MP আলট্রাওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা এবং 12MP টেলিফটো লেন্স, যা জুম লেন্স হিসেবে কাজ করবে। সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য দুটি ফোনেই 12MP ফ্রন্ট ফেসিং সেন্সর দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ  ২০০০০ থেকে ২৫০০০ হাজার টাকার মধ্যে ভালো মোবাইল ফোন ২০২২

iPhone 14 Pro Max এর দাম 128GB স্টোরেজ মডেলের বাংলাদেশ দাম 1,39,900 টাকা। এর 256GB, 512GB এবং 1TB মডেলগুলির বাংলাদেশ দাম যথাক্রমে 1,49,900 টাকা, 1,69,900 টাকা এবং 1,89,900 টাকা।

Samsung Galaxy S22 Ultra

আমাদের লিস্টের ৮ নাম্বার এ আছে Samsung Galaxy S22 Ultra ফোনটি। Samsung Galaxy S22 Ultra ফোনটির ডিসপ্লে সাইজ ৬.৮ ইঞ্চি। ফোনটির ডিসপ্লে রেজুলেশন হবে ১৪৪০×৩০৮০ পিক্সেল।

Samsung Galaxy S22 Ultra ফোনে প্রসেসর হিসেবে থাকবে Exynos 2200/SM8450 Snapdragon 8 Gen 1 (4 nm)। এই ফোনটি বিশেষ করে ক্যামেরার কোয়ালিটি দিয়ে বিশ্বের সকলের মন জয় করে নিয়েছে।

ফোনটিতে রয়েছে ১০৮ মেগাপিক্সেল এর মেইন ক্যামেরা। তাছাড়া ফোনটিতে আরো আছে ১০ মেগাপিক্সেল এর পেরিস্কোপ জুম, ১০ মেগাপিক্সেল এর টেলিফোটো জুম এবং ১২ মেগাপিক্সেল এর আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স।

Samsung Galaxy S22 Ultra এর সেলফি ক্যামেরা হিসেবে এতে আছে ৪০ মেগাপিক্সেল এর ক্যামেরা। ফোনটিতে ব্যাটারি হিসেবে থাকবে ৫০০০ এমএএইচ এবং ৪৫ওয়াড এর ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি। এই ফোনটির 12GB/256GB ভ্যারিয়েন্টের বর্তমান বাংলাদেশ দাম ১৭৯,০০০ টাকা।

Oneplus 10T

OnePlus 10T 5G ফোনটি ভারতে আসছে ৩রা আগস্ট। ফোনে মেইন ক্যামেরা হিসবে দেওয়া হয়েছে 50MP Sony IMX766 ক্যামেরা। এছাড়া সেকেন্ডারি ক্যামেরা হিসেবে এই ফোনে একটি ১৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা দেয়া হয়েছে।

এই ফোনে থাকছে 6.7 ইঞ্চির ফুল HD+ AMOLED ডিসপ্লে। জানা গিয়েছে, এই ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট 120Hz। সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য এই OnePlus 10T 5G ফোনে একটি 16MP ফ্রন্ট ফেসিং সেন্সর দেওয়া হচ্ছে। অত্যন্ত শক্তিশালী একটি 4800mAh ব্যাটারি রয়েছে, যা 150W ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

পারফরম্যান্সের জন্য Snapdragon 8+ Gen 1 প্রসেসর থাকছে। অন্যদিকে সফটওয়্যার হিসেবে থাকছে Android 12 ভিত্তিক OxygenOS 12.1। এই ফোনটির 8GB/128GB ভ্যারিয়েন্টের বর্তমান বাংলাদেশ দামঃ ৫৭,০০০ টাকা।

Poco F4 5G

Poco F4 5G তে স্ন্যাপড্রাগন 870 প্রসেসর রয়েছে। থাকছে ৬.৬৭ ইঞ্চির AMOLED ডিসপ্লে। 120 Hz রিফ্রেশ রেট। Poco F4-এ ৪৫০০ mAh ব্যাটারি আছে।

নিয়মিত ব্যবহারের পাশাপাশি গেমিংয়ের পরেও মোটামুটি সারাদিন চার্জ রয়েছে। ফোনটিতে 67W ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি রয়েছে, যা দিয়ে মাত্র ৪০ মিনিটের মধ্যে ০ থেকে ১০০ শতাংশ চার্জ করে ফেলা যায়।

Poco F4-এ একটি ৬৪ MP প্রাইমারি ক্যামেরা রয়েছে। একটি ৮MP ওয়াইড-এঙ্গেল ক্যামেরা এবং একটি ২MP ম্যাক্রো লেন্স আছে।সামনে একটি ২০ এমপি লেন্স রয়েছে, যা দিনের বেলা ভালো সেলফি তুলতে সাহায্য করে। বর্তমানে এই ফোনটির বাংলাদেশ দামঃ 6GB/128GB ২৭,৯৯৯ টাকা।

শেষ কথাঃ আপনাদের কাছে সেরা ১০ টি বেস্ট গেমিং ফোন ২০২২ এর মধ্যে কোনটি কেমন লেগেছে তা অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন এবং প্রযুক্তির সকল আপডেট পেতে বাংলা টেকস্পট এর সাথেই থাকুন। ধন্যবাদ।

এস এম সাজিজুল

বাংলায় জানো, বাংলায় জানাও। প্রযুক্তির জ্ঞান বাড়াও!

সম্পর্কিত আর্টিকেল

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button

অ্যাডব্লকার ডিটেক্ট হয়েছে!

মনে হচ্ছে আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন। আমাদের সাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অ্যাড ব্লকার বন্ধ করতে হবে। যদি অ্যাডব্লকার ব্যবহার না করেন, তাহলে পেজটি রিফ্রেশ করুন।