গ্যাজেট এন্ড ডিভাইসরিভিউ

A4Tech Wireless G3-200N Mouse – বাংলা রিভিউ

A4Tech এর Wireless মাউসগুলোর মধ্যে G3-200N মাউসটি বেশ ইউসফুল এবং ভালো পারফরম্যান্স দিতে সক্ষম। আমি নিজেও এই মাউসটি ব্যবহার করি বিধায় আপনাদের সাথে আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছি মাত্র, যাতে আপনারা এই মাউসের সমন্ধে ভালো একটা ধারনা পান।

শুরুতেই বলে নেই মাউসের প্যাকে কি কি থাকে। যেহেতু এটি একটি মাউস সেহেতু মাউসের প্যাকে অতিরিক্ত কিছুই থাকবে না। শুধুমাত্র একটি মাউস, একটি ব্যাটারি আর একটি ইউএসবি ন্যানো রিসিভার থাকবে যার মাধ্যমে মাউসটি তারবিহীন চলে।

A4Tech WirelessG3-200N মাউসটি বেশ ইউসফুল একটি মাউস, এ মাউসে চমৎকার কিছু ফিচার আছে যা আমাকে মুগ্ধ করেছে। যেমন এর র‍্যাঞ্জ, ব্যাটারি ব্যাকআপ, পাওয়ার সেভিং এবং স্টেবল ওয়্যারলেস সাপোর্ট।

র‍্যাঞ্জঃ A4Tech এর G3-200N মাউসটি ৫০ ফিট দূর থেকেও কাজ করতে সক্ষম। যদিও কেউ এত দূরে থেকে মাউসের সাহায্যে কম্পিউটার  নিয়ন্ত্রণ করে না। তবুও এটা বেশ ভালো একটা ফিচার। আমি প্রায় ১২ ফিট দূরে থেকে এ মাউসের মাধ্যমে কম্পিউটার নিয়ন্ত্রণ করেছি। আমি কোন প্রকার সমস্যার সম্মুখীন হয়নি, আশা করছি আপনারাও সমস্যার সম্মুখীন হবেন না।

ব্যাটারি ব্যাকআপঃ প্যাকের গায়ে ও প্রোডাক্টের অনলাইন পেইজে ১২ মাসের ব্যাটারি ব্যাকআপ গ্যারান্টির কথা বলা হয়েছে। ১২ মাস ব্যাটারি লাইফ টাইম দেয়া হয়েছে, কিন্তু ব্যাটারি ব্যাকআপ সম্পূর্ণ ব্যবহার করার উপর নির্ভর করে। মাউসের সাথে থাকা ব্যাটারিটি আপনার ব্যবহার অনুযায়ী ১২ মাসের কম অথবা বেশী সময়ও যেতে পারে।

পাওয়ার সেভিংঃ এ মাউসটিতে পাওয়ার সেভিং টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে যা ব্যাটারির স্থায়ীত্ব বাড়াতে সক্ষম। এ মাউসের বিশেষত্বই হলো পাওয়ার সেভিং টেকনোলজি। ৮ মিনিটের বেশী সময় ধরে যদি মাউসের মাধ্যমে কোন কাজ করা না হয় তাহলে অটোমেটিক মাউসটি বন্ধ হয়ে যাবে। এই ফিচারটি বেশ চমৎকার একটি ফিচার। মুলত এ ফিচার এর জন্যেই মাউসের ব্যাটারির স্থায়ীত্ব বাড়ে।

স্টেবল ওয়্যারলেস সাপোর্টঃ এবার আসি পারফরম্যান্স এর কথায়। এ মাউসের স্টেবল পারফরম্যান্স আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। মাউসটি ব্যবহার করার সময় কোন প্রকার ডিলে ছিল না, কাজ করার সময় তাৎক্ষনিক পারফরম্যান্স করেছে।

A4Tech এর G3-200N ওয়্যারলেস মাউসটি মোট ৫টি কালারে পাওয়া যাচ্ছে।

  1. কালো কালার
  2. কালো + কমলা কালার
  3. কালো + লাল কালার
  4. কালো + নীল কালার
  5. গ্রে কালার

এ মাউসটি আপনারা বাজারে ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকার মধ্যে পাবেন।

বিঃদ্রঃ এই পোস্ট সংক্রান্ত কোন বিষয়ে জানতে চাইলে কমেন্টে জানাতে পারেন, উত্তর দেয়ার চেষ্টা করবো ইনশাল্লাহ। 

সম্পর্কিত আর্টিকেল

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Back to top button

অ্যাডব্লকার ডিটেক্টেড

আপনি সম্ভবত অ্যাডব্লকার ব্যবহার করছেন। আমাদের সাইট ভিজিট করতে চাইলে অবশ্যই অ্যাডব্লকার ডিজেবল করতে হবে।