লাইফ স্টাইলশিক্ষা ও স্বাস্থ্য

দ্রুত বীর্য পাতের চিকিৎসা! লক্ষণ, কারণ, ঘরোয়া এবং প্রাকৃতিক চিকিৎসা

জানুনঃ কেন দ্রুত বীর্যপাত হয়? দ্রুত বীর্যপাতের লক্ষণ ও কারণগুলো কি কি? দ্রুত বীর্যপাতের ঘরোয়া ও প্রাকৃতিক চিকিৎসা।

মানুষের দাম্পত্য জীবনের হতাশা, অস্থিরতা, অশান্তি ও স্বামী স্ত্রীর প্রতি সম্পর্কের অবনতির অনেকগুলো কারণ রয়েছে। কিন্তু সব কারণের মধ্যে অন্যতম একটি কারণ হলো স্বামী বা পুরুষের দ্রুত বীর্যপাত

আমাদের বর্তমান সমাজে লোক লজ্জার ভয়ে এই সমস্যা সামনে না আসলেও, প্রায় প্রতি পরিবারেই দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা বিরাজমান।

আজকের এই আর্টিকেলে আমরা দ্রুত বীর্যপাতের চিকিৎসা জানবো। সেই সাথে দ্রুত বীর্য পাতের লক্ষণ ও দ্রুত বীর্য পাতের কারণগুলোও জানবো।

তাহলে চলুন আমরা শুরুতে দ্রুত বীর্য পাতের লক্ষণগুলো জেনে নেই, তারপর দ্রুত বীর্য পাতের কারণ ও শেষে দ্রুত বীর্য পাতের চিকিৎসা জানবো।

দ্রুত বীর্য পাতের চিকিৎসা! লক্ষণ, কারণ, ঘরোয়া এবং প্রাকৃতিক চিকিৎসা
দ্রুত বীর্য পাতের চিকিৎসা! লক্ষণ, কারণ, ঘরোয়া এবং প্রাকৃতিক চিকিৎসা

দ্রুত বীর্য পাতের লক্ষণ সমূহ

আমরা নিচে বেশ কিছু দ্রুত বীর্য পাতের লক্ষণ উল্লেখ করেছি। এই লক্ষণগুলো মানসিক রোগের ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড স্ট্যাটিস্টিক্যাল ম্যানুয়াল ৫ অনুসারে উল্লেখ করা হয়েছে।

যদি নিচের লক্ষণগুলো কারো সাথে মিলে যায়, তাহলে ধরে নিতে হবে তার মধ্যে দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা রয়েছে।

  • কোন মানসিক বা শারীরিক রোগ থাকা।
  • কোন ওষুধ সেবন বা মাদকদ্রব্য সেবন করা।
  • স্ত্রীর মধ্যে যৌণ অসন্তোষ এবং হতাশা সৃষ্টি হওয়া।
  • ৭৫-১০০ ক্ষেত্রে যদি সময়ের আগেই বীর্যপাত হয়ে যায়।
  • এই সমস্যা ৬মাস বা তার অধিক সময় ধরে চলতে থাকা।
  • মিলনের সময় ১ মিনিটের কম সময়ের মধ্যে বীর্যপাত হওয়া।

এবার চলুন দ্রুত বীর্য পাতের কারণগুলো জেনে নেয়া যাক।

দ্রুত বীর্য পাতের কারণ সমূহ

প্রতিটি রোগের যেমন কারণ রয়েছে, ঠিক তেমনি দ্রুত বীর্য পাতেরও কিছু কারণ রয়েছে। দ্রুত বীর্য পাতের কারণগুলোকে ২ ভাগে ভাগ করা যায়ঃ

১) জৈবিক কারণ
২) মানসিক কারণ

চলুন একে একে দ্রুত বীর্য পাতের জৈবিক ও মানসিক কারণগুলো জেনে নিই।

১) দ্রুত বীর্য পাতের জৈবিক কারণ

নিচে দ্রুত বীর্য পাতের জৈবিক কারণগুলো উল্লেখ করা হয়েছে, এসব জৈবিক কারণে দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা হতে পারে।

  • হৃদরোগ থাকা
  • ডায়াবেটিস থাকা
  • বিভিন্ন ওষুধ সেবন করা
  • থাইরয়েড গ্রন্থির সমস্যা থাকা
  • মূত্রনালির সংক্রমন ও প্রদাহ থাকা
  • বিভিন্ন হরমোনজনিত সমস্যা থাকা
  • বিভিন্ন রোগ, যেমনঃ সিফিলিস, গনোরিয়া ও ইত্যাদি থাকা।
  • সার্জারি বা আঘাত জনিত কারণে স্নায়ুতন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হলে।
আরও পড়ুনঃ  কিভাবে লম্বা হওয়া যায়? লম্বা হওয়ার প্রাকৃতিক উপায়

এবার চলুন দ্রুত বীর্য পাতের মানসিক কারণগুলো জানি।

২) দ্রুত বীর্য পাতের মানসিক কারণ

নিচে দ্রুত বীর্য পাতের মানসিক কারণগুলো উল্লেখ করা হয়েছে, এসব মানসিক কারণে দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা হতে পারে।

  • শারীরিক দূর্বলতা থাকা।
  • অতিরিক্ত প্রত্যাশা থাকা।
  • সেক্সুয়াল এবিউজ।
  • কম বয়সে সহবাস করা।
  • মাদকাসক্ত /নেশাগ্রস্ত হওয়া।
  • সেক্স সম্পর্কে ভুল ধারনা থাকা।
  • সঠিক যৌন শিক্ষার অভাব থাকা।
  • দুঃশ্চিন্তা /মানসিক চাপ/ ডিপ্রেশন থাকা।
  • সম্পর্ক অবনতি /দাম্পত্য কলোহ থাকা।
  • আগের ব্যর্থতা বার বার মনে করা।
  • প্রি ম্যারাইটাল বা বিবাহ পূর্ব কাউন্সিলিং এর অভাব থাকা।
  • চাকরি-ব্যবসা জনিত কারণে দূরে থাকা এবং অনেকদিন পরপর শারীরিক সম্পর্কের সুযোগ পাওয়া।

এবার চলুন দ্রুত বীর্য পাতের সমাধান ও চিকিৎসা কি তা জেনে নেই।

দ্রুত বীর্য পাতের চিকিৎসা ও সমাধান

দ্রুত বীর্য পাত থেকে মুক্তি পেতে হলে সঠিক চিকিৎসা নিতে হবে। সমাজ ও লোক লজ্জার ভয় এড়িয়ে চিকিৎসা নিলেই দ্রুত বীর্য পাত থেকে মুক্তি সম্ভব।

চিকিৎসার ক্ষেত্রে প্রাকৃতিক চিকিৎসা নিলে ও কার্যকরি খাবার খেলে দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তাই, চলুন আমরা শুরুতে প্রাকৃতিক চিকিৎসা ও খাবারের মাধ্যমে দ্রুত বীর্য পাতের সমাধান জেনে নেই।

দ্রুত বীর্য পাতের প্রাকৃতিক চিকিৎসা

১) যখন মিলন করবেন, তখন ধীরে ধীরে লম্বা ও গভীর শ্বাস নিবেন, যখন আপনি মিলনের চরম মুহুর্তে থাকবেন, তার একটু আগে লম্বা ও গভীর শ্বাস বন্ধ রাখবেন। এরকম করলে আপনার বীর্যপাত আগের থেকে অল্প হলেও সময় বাড়বে। এরকম নিয়মিত করলে আপনার দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা ধীরে ধীরে দূর হতে থাকবে।

২) দিনে যদি একের অধিকবার মিলন করেন, তাহলেও আপনার দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা দূর হবে। ১ দিনে যদি একবারের বেশী মিলন করেন তাহলে আপনার লিঙ্গের সেন্সিটিভিটি নিয়ন্ত্রণে আসবে, সেই সাথে পর্যাপ্ত পরিমাণে বীর্য না থাকায়, আপনার বীর্যপাত হতে সময় বেশী লাগবে। যাদের দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা হয়, তারা শুরুতে বেশী সময় বীর্য ধরে রাখতে পারবেন না, কিন্তু বেশ কিছুদিন এই পদ্ধতিতে চেষ্টা চালিয়ে গেলে, ভালো ফল পাবেন।

আরও পড়ুনঃ  টনসিলের ব্যথা দূর করার কার্যকরী ঘরোয়া সমাধান

৩) ব্ল্যাক কফি ও তরমুজের জুস খাওয়া। যেকোন ধরনের উত্তেজক খাবার খেলে মিলনের আগে ও পরে শরীরে উত্তেজনা বজায় থাকে। কফি মধ্যে ক্যাফেইন থাকে, কফি খাওয়ার ফলে মন সতেজ ও চাঙ্গা থাকে।

৪) মিলনের সময় বিরতি নেয়া। মিলনের সময় ছোট ছোট বিরতি নিলে দ্রুত বীর্য পাতের প্রবণতা কমে যায়। তবে এতে নারীরা বিরক্তিভোধ করতে পারে, তবে ধীরে ধীরে অভ্যাস হয়ে যাবে। যদি নিয়মিত এই পদ্ধতি অবলম্বন করেন, তাহলে কয়েকমাসেই তার ফল পেয়ে যাবেন।

৫) স্ত্রীদের সেন্সিটিভ অঙ্গে স্পর্শ করা জানতে হবে। বেশ সময় নিয়ে এই পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। স্ত্রীর উত্তেজনা বাড়ে এমন জায়গায় স্পর্শ, চুম্বন বা আলতো ঘষা যেতে পারে। স্বামী স্ত্রী দুজনেই এই পদ্ধতি অবলম্বন করলে মিলনের সময় অনেক বেড়ে যায়।

দ্রুত বীর্য পাতের ঘরোয়া চিকিৎসা

মানব শরীরে তলপেটের পেশীগুলোকে শক্তিশালী ও মজবুত দৃঢ় করতে পারলে মিলনের সময় বৃদ্ধি পায়। তলপেটের পেশীগুলোকে শক্ত ও মজবুত করতে হলে ব্যায়াম করা প্রয়োজন।

ব্যায়ামের ক্ষেত্রে কেগেল ব্যায়াম সবচাইতে বেশী কাজ করে। নিচে দেখে নিন কিভাবে কেগেল ব্যায়াম করবেন।

  • প্রথমে ঢিলাঢালা কোন কাপড় পরিধান করুন এবং সমান জায়গায় অথবা বিছানায় চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন।
  • এরপর ধীরে ধীরে কোমর বিছানার সাথে লাগিয়ে রেখে দুই পা একই সাথে উপরে তুলুন।
  • পা উপরে তোলার সময় দুইহাত বিছানাইয় টান লাগিয়ে রাখুন।
  • এবার দশ সেকেন্ড পর দুই পা আস্তে আস্তে নিচে নামান।
  • তারপর আবার পা আগের মতো উপরে তুলুন, ১০ সেকেন্ড পর আবার নিচে নামান।

এভাবে প্রতিদিন ২০ মিনিট ব্যায়ান করলেও দ্রুত বীর্য পাতের থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

আরও পড়ুনঃ  হস্ত মৈথুনের উপকারিতা কি ও ক্ষতিকর দিক

দ্রুত বীর্য পাতের চিকিৎসায় খাবার

দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা হলে অনেকে মনে করেন ভালো খাবার খেলে দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এই কথাও সত্যি যে, চিকিৎসায় খাবারের অনেক গুরুত্ব রয়েছে।

এমন অনেক খাবার রয়েছে, যেগুলো খেলে দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যাস সমাধান হয়। নিচে এমন কিছু খাবারের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

  • প্রতিদিন সকালে ও রাতে খেজুর খেলে এই সমস্যা সমাধান হয়। খেজুর মানবদেহে শারীরিক ও যৌন শক্তি বৃদ্ধি করে।
  • যৌন বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা বলেন, যদি কোন ব্যাক্তি প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ ও একটি করে ডিম খায়, তাহলে তার কখনো যৌন সমস্যা নিয়ে ডাক্তারের কাছে আসতে হবেনা।
  • দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা থেকে বাঁচতে সূর্যমূখী ফুলের বীজ, চিনা বাদাম, কাজু বাদাম, পেস্তা বাদাম, ও মিষ্টিকুমড়ার বীজ খান।
  • প্রতিদিন কাচা রসুন ঘি দিয়ে ভেজে খান। এভাবে না পারলে তরকারি ও বিভিন্ন প্রকার খাবারের সাথে রসুন খাওয়ার চেষ্টা করুন। রসুন যৌন ও হৃদ রোগে অত্যন্ত কার্যকরি।
  • গরুর লাল মাংস খান, দ্রুত বীর্য পাতের সমাধানে এটিও বেশ উপকারি।

দ্রুত বীর্য পাতের স্থায়ী চিকিৎসা ও ওষধ

দ্রুত বীর্য পাতের স্থায়ী চিকিৎসা ও ওষধ হলো প্রাকৃতিক উপায় অবলম্বন করা ও নির্দেশিত খাবার গ্রহণ করা। যদি আপনার শরীরে কোন শারীরিক সমস্যা বা রোগ না থাকে, তাহলে প্রাকৃতিক উপায় ও খাবার খেলেই দ্রুত বীর্য পাত সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

কিন্তু শারীরিক কোন সমস্যা থেকে থাকলে, অথবা দীর্ঘদিন ধরে প্রাকৃতিক চিকিৎসায় ভালো ফল না পেলে তাদের অবশ্যই ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা উচিত।

৯০-৯৫ ক্ষেত্রে দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যায় আক্রান্ত পুরুষদের, সঠিক চিকিৎসার মাধ্যমে দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা সমাধান করা সম্ভব। লোক লজ্জার ভয় না পেয়ে সঠিক চিকিৎসা গ্রহণ করলেই মিলবে দ্রুত বীর্য পাতের সমাধান

যেহেতু দ্রুত বীর্য পাতের অনেকগুলো কারণ রয়েছে, তাই দ্রুত বীর্য পাতের সমস্যা থেকে বাঁচতে হলে আপনাকে একজন যৌন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে।

দ্রুত বীর্য পাত এক বা একাধিক সমস্যার জন্যেও হতে পারে তাই অবশ্যই আপনাকে লোক লজ্জার ভয়কে উপেক্ষা করে ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে, নতুবা আপনার এই সমস্যার সমাধান নাও হতে পারে।

শেষ কথাঃ এই আর্টিকেলে দ্রুত বীর্য পাত কেন হয়? কারণগুলো কি কি? সেই সাথে দ্রুত বীর্য পাতের প্রাকৃতিক, ঘরোয়া ও স্থায়ী চিকিৎসা সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে।

দ্রুত বীর্য পাতের সমন্ধে আপনার কোন ব্যাক্তিগত প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে জানিয়ে দিন। আমরা চেষ্টা করবো আপনার প্রশ্নের যথাযথ উত্তর দেয়ার। ধন্যবাদ।

সূত্র
সেবাঘরডক্টল্যাব

সম্পর্কিত আর্টিকেল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

অ্যাডব্লকার ডিটেক্ট হয়েছে!

মনে হচ্ছে আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন। আমাদের সাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অ্যাড ব্লকার বন্ধ করতে হবে। যদি অ্যাডব্লকার ব্যবহার না করেন, তাহলে পেজটি রিফ্রেশ করুন।