বিভাগ বহির্ভূত

এআই দিয়ে ছবি এডিট করে ইনকামের উপায়

সূচিপত্র দেখুন

এআই দিয়ে ছবি এডিট করে ইনকামের উপায়

এআই দিয়ে ছবি এডিট করে ইনকামের উপায় নিয়ে সাজানো হয়েছে আমাদের আজকের এই লেখাটি। যারা ভাবছেন এআই মানুষের কাজ কেড়ে নিয়েছে কিংবা স্কিল সেল করার সুযোগ করে নিয়েছে তারাও যে ভুল ধারণা নিয়ে বসে আছেন তারই প্রমাণ তুলে ধরবো আজ। বিস্তারিত জানতে আমাদের সাথেই থাকুন।

এআই দিয়ে ছবি এডিট করার উপায়

শুরুতে চলুন এআই দিয়ে ছবি এডিট করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক। কারণ প্রোডাক্ট তৈরিটাই মূখ্য কাজ। পরে না হয় মার্কেটিংয়ের সাহায্যে প্রচুর সেলস তৈরি করা সহজ হবে। চলুন তবে আর্টিকেলের এই অংশে বেশকিছু এআই দিয়ে ছবি এডিট করার প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে জানি।

দালে টু

টেক্সট প্রম্পট দিয়ে আপনাকে ছবি তৈরি করতে সাহায্য করবে এই চমৎকার এআই টুলস। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো ছবি এডিট করার সময় আপনি এই প্ল্যাটফর্মে একই সাথে ২ ধরণের সুবিধা অর্থ্যাৎ আউটপেন্টিং এবং ইনপেন্টিং এডিটিং সুবিধা পেয়ে যাবেন। 

আরও পড়ুনঃ  টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় বাংলাদেশে ২০২৩

যাদের ইমেইজে ইচ্ছেমতো দুর্দান্ত প্যানারমিক ল্যান্ডস্কেপ তৈরির প্রয়োজন তারাও চোখ বন্ধ করে এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করতে পারবেন। কারণ এখানে ভালো প্যানারমিক ল্যান্ডস্কেপ তৈরির অপশন আছে। ব্যবহারের শুরুতে এই টুল কিছু ফ্রি ক্রেডিট দিলেও পরবর্তীতে ব্যবহারের জন্যে আপনারে এই পেইড ভার্সনটি কিনে নিতে হবে৷

ক্যানভা

যারা আমাদের আজকের এই এআই দিয়ে ছবি এডিট করে ইনকামের উপায় সম্পর্কিত লেখাটি পড়তে এসেছেন তারা ইতিমধ্যেই একটিবারের জন্যে হলেও ক্যানভার নাম শুনেছেন। 

বিভিন্ন মাথানষ্ট এবং সহজে ব্যবহার করা যায় এমন সব ফিচারের মতো এই প্ল্যাটফর্মে রয়েছে এআই এডিটিংয়ের চমৎকার সুযোগ। খুবই ইউজার ফ্রেন্ডলি এআই ইমেজ জেনারেট করতে সাধারণত ক্যানভা ব্যবহারের কথা বলা হয়। 

মোটামুটি সোশ্যাল মিডিয়া এবং ওয়েবসাইটে গ্রাফিক্স তৈরি করার কাজে চোখ বন্ধ করে এই ক্যানভাকে বিশ্বাস করা যায়। আপনি চাইলে ক্যানভা ব্যবহারে ওয়েব এবং মোবাইল অ্যাপ দু’টোই ব্যবহার করতে পারেন।

মিডিজার্নি এআই

একদম বাস্তব এবং চমৎকার ছবি তৈরি করতে পারায় এই এআই সম্প্রতি বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। তাইতো আজকাল বিভিন্ন পেশার ব্যাক্তির কাছে হাই কোয়ালিটি এআই ছবি তৈরি করার অন্যতম মাধ্যম হিসাবে বিবেচিত হচ্ছে এই মিডিজার্নি এআই। 

আপনি টুলের বিটা প্রোগ্রামের মাধ্যমে ফ্রিতে ইচ্ছেমতো ছবি এডিট বা তৈরি করিয়ে নিতে পারবেন। বলে রাখা ভালো এআই হিসাবে এই প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহারে সাহায্য করছে এর চমৎকার মেশিন লার্নিং ব্যবহার অ্যালগরিদম।

এআই দিয়ে ছবি এডিট করে ইনকামের উপায়

এবার আসি আলোচনার সরাসরি অংশ অর্থ্যাৎ এআই দিয়ে ছবি এডিট করে ইনকামের উপায় সম্পর্কিত মূল আলোচনায়। মূলত যেসব টিপস ফলো করে অন্যদের মতো আপনিও এআই দিয়ে এডিট করা ছবি থেকে ইনকাম করতে পারবেন সেসব টিপস হলো:

১. অনলাইন বিজনেস পরিচালনা করতে পারেন

অনলাইন বিজনেসে যেহেতু গ্রাহক সরাসরি আপনার প্রোডাক্ট চেক করতে পারবে না সেহেতু আপনাকে প্রোডাক্ট রিলেটেড ভালো গ্রাফিক্স তুলে ধরতে হবে। 

এছাড়াও অডিয়েন্স তৈরিতেও প্রয়োজন পড়বে হাই কোয়ালিটির গ্রাফিক্স। যা তৈরিতে এই এআই টেকনিক ব্যবহার করতে পারেন। শুধুমাত্র কয়েকটি ক্লিকেই তৈরি করিয়ে নিতে পারেন চমৎকার সব ইমেজ। 

পরবর্তীতে তা অনলাইন বিজনেস প্ল্যাটফর্মগুলিতে আপলোড করে দেবেন৷ এতে স্ক্র্যাচ থেকে ডিজাইন করার ক্ষেত্রে ব্যবহৃত বাড়তি সময়ের পরিমাণ অনেকটা কমে আসবে।

আরও পড়ুনঃ  আউটপুট ডিভাইস কাকে বলে? কত প্রকার ও কি কি? (What is Output Device in Bengali)

২. অনলাইনে ডিজিটাল প্রোডাক্ট সেল করুন

কেমন হয় যদি আপনি এমন কোনো বিজনেস আইডিয়া পান যেখানে প্রোডাক্ট অনলাইনে তৈরির পর সেল আসলে তবে প্রোডাক্ট হাতে পাওয়ার সুযোগ থাকে? 

অর্থ্যাৎ সরাসরি অর্ডার পেলে তবেই আপনি প্রোডাক্ট কালেক্ট করে তা ডেলিভারি দেবেন। আগে থেকে স্টক করার ঝামেলা আপনাকে পোহাতে হবে না। হ্যাঁ যেমনই সব চমৎকার আইডিয়ার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে এই এআই। 

এআইয়ের সাহায্যে আপনি ইচ্ছেমতো টি শার্ট, কফি মগ, ক্যাপ ইত্যাদি এডিট করে অনলাইন শপে সেল করতে পারেন। এক্ষেত্রে ভালোকিছু নিশ আইডিয়া হলো:

  • ফোন ব্যাকগ্রাউন্ড কভার
  • ল্যাপটপ ব্যাকগ্রাউন্ড কভার
  • ট্যাবলেট/আইপ্যাড ব্যাকগ্রাউন্ড কভার
  • সোশ্যাল মিডিয়া টেমপ্লেট
  • প্রেজেন্টেশন টেমপ্লেট
  • ইমেজ লাইব্রেরি

৩. অনলাইন সার্ভিস সেলিংয়ে এআই ব্যবহার করুন

যারা অনলাইনে বিভাব ডিজিটাল সার্ভিস সেল করে আসছেন তারা তাদের সেল বাড়াতে এআই ফটো জেনারেটর ব্যবহার করতে পারেন। 

আপনার যদি এমন গ্রাহক থাকে যারা তাদের শার্ট বা জামাকাপড়ের জন্য নির্দিষ্ট ইউনিক ডিজাইন চায় সেক্ষেত্রেও আপনি নিজের ক্রিয়েটিভিটি এবং এআইয়ের ম্যাজিক কাজে লাগাতে পারেন।

৪. এড তৈরিতে এআই ব্যবহার করুন

ফ্যাশন স্টোর সেট আপ করার পরিকল্পনা করছেন? এড তৈরিতে ব্যবহার করুন এআই। সু এর স্টোর দিতে চাচ্ছেন? এড তৈরিতে ব্যবহার করুন এআই। 

এই এআইয়ের ব্যবহার এসব ক্ষেত্রে আপনাকে মডেল, ফটোগ্রাফার, স্টুডিও স্পেস এবং আরও অনেক সেক্টরে ইনভেস্ট করার ঝামেলা থেকে মুক্তি দেবে। মোটামুটি এআই ব্যবহার করতে পারলে এড রান করার ক্ষেত্রে মডেল, ফটোগ্রাফার এবং অন্য কিছুর প্রয়োজন পড়বে না। 

৫. এআই ব্যবহার করে ব্লগিং শুরু করুন

আপনি চাইলে এআই ব্যবহার করে ব্লগিং শুরু করতে পারেন। এআই ফটো জেনারেটর ব্যবহার করার অন্যান্য উপায় হিসাবে এই ব্লগিং একেবারে ইউনিক। ব্লগ হল একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি বিভিন্ন ক্যাটাগরির কন্টেন্ট আপলোড করে তা থেকে আয় করতে পারবেন। 

ব্লগিংয়ের সাথে জড়িত বেশিরভাগ কাজ হলো রাইটিং কপি রিলেটেড কাজ। যেখানে আপনাকে বিভিন্ন টপিকের উপর লিখতে হবে। আর এই লেখাকে আরো বেশি প্রাণবন্ত করতে ব্যবহার করতে হবে প্রয়োজনীয় গ্রাফিক্সের। এসব গ্রাফিক্স তৈরিতে এআই ব্যবহার করা যায়।

ইতি কথা

উপরোক্ত এআই দিয়ে ছবি এডিট করে ইনকামের উপায় ছাড়াও আরো অনেক ইউনিক উপায় রয়েছে। দিনদিন এসব উপায়ের সংখ্যা আরো বেড়ে চলেছে। যেমন স্টক ইমেইজের মতো প্ল্যাটফর্মে নিজের এআই ফটো সেল করা, টি-শার্ট তৈরি করে সেল করা ইত্যাদি।

সম্পর্কিত আর্টিকেল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

অ্যাডব্লকার ডিটেক্ট হয়েছে!

মনে হচ্ছে আপনি অ্যাড ব্লকার ব্যবহার করছেন। আমাদের সাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অ্যাড ব্লকার বন্ধ করতে হবে। যদি অ্যাডব্লকার ব্যবহার না করেন, তাহলে পেজটি রিফ্রেশ করুন।